আশুগঞ্জে তাওহীদী জনতার বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত

বাবুল সিকদার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি: ফ্রান্সে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে কটাক্ষ করে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনীর প্রতিবাদে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে তাওহীদী জনতার বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় উপজেলার সর্বস্তরের তাওহীদী জনতার অংশগ্রহনে একটি বিক্ষোভ মিছিল আশুগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের সামনে থেকে শুরু হয়ে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের গোল চত্ত্বর হয়ে পূর্ববাজার এলাকায় এসে বিক্ষোভ সমাবেশে মিলিত হয়। বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন, আশুগঞ্জ জামিয়া ইসলামিয়া ইমদাদুল উলুম মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা মুফতী উবায়দুল্লাহ।

সোহাগপুর মাদরাসার সহ সভাপতি মাওলানা হাফেজ শাহ আলমের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তৃতা করেন, আশুগঞ্জ সারকারখানা মসজিদের খতিব মাওলানা আব্দুর রহীম, আশুগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক,সোহাগপুর মহিলা মাদরাসার পরিচালক মাওলানা নূরে আলম, মাওলানা হুসাইন আহমেদ যুক্তিশাহী,মাওলানা হাফেজ মাঈনুদ্দিন,মাওলানা মুফতী মিজানুর রহমান, মাওলানা আব্দুল আজিজ, মাওলানা মুফতি ইসমাইল, মাওলানা কামরুল ইসলাম, মাওলানা আব্দুল্লাহ, মাওলানা আব্দুল জলিল ও মাওলানা কামরুল ইসলাম প্রমুখ। বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে ‘ফান্সের শার্লি এবদো নামে একটি ম্যাগাজিন নবী করিম (সা.)-কে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের তীব্র নিন্দা জানানো হয়।

পাশাপশি ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর নিন্দা প্রস্তাব এবং ফ্রান্সের রাষ্টদূতকে তলব করার দাবি জানিয়ে বক্তারা বলেন, ‘ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় যে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনী হয়েছে তা অত্যন্ত ন্যক্কারজনক। মুসলিম প্রধান দেশ হিসেবে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে অবশ্যই ফ্রান্স সরকারের এ কর্মকাণ্ডের নিন্দা জানাতে হবে এবং ফান্সে রাষ্ট্রদূতকে তলব করে এর প্রতিবাদ জানাতে হবে। প্রয়োজনে ফ্রান্সের সাথে সকল কুটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করতে হবে। অন্যথায়, তাওহীদী জনতার আন্দোলন চলতেই থাকবে।